রামগঞ্জ বসতবাড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় ভাংচুর-লুটপাট,আহত-৬

576

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার নয়নপুর কবিরাজ বাড়ির আনোয়ার হোসেনের বসতঘরে সোমবার দিবাগত গভীর রাতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় সন্ত্রাসীরা আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী লায়লা বেগম,সন্তান রিয়াদ হোসেন,ফরহাদ হোসেন,আত্মীয় সুলতানা,যুবলীগ নেতা জহির ও চুট্টোকে পিটিয়ে আহত করে। মঙ্গলবার দুপুরে আহত লায়লা বেগম বাদি হয়ে থানা একটি এজাহার দায়ের করেছে।
সুত্রে জানায়,উপজেলার নয়নপুর গ্রামের কবিরাজ বাড়ির আনোয়ার হোসেনের সাথে একই বাড়ির হাবিবুর রহমানের পুত্র হাসানের সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী লায়লা বেগম মেয়ের চিকিৎসা করতে কক্সবাজারে যাওয়ার সুযোগে হাসান লোকজন নিয়ে দুপুরে আনোয়ার হোসেনের বসতঘরে চারপাশে ব্যারিকেট দিয়ে সম্পত্তি দখলে নেয়। খবর পেয়ে আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে কক্সবাজার থেকে বাড়ি পৌছা মাত্রই হাসানের নেতৃত্বে ৭/৮ জনের একটি গ্রুপ অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন লায়লা বেগম বলেন,সন্ত্রাসীরা বসতঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর,মারধর ও লুটপাট করার সময় চিৎকার শুনে গ্রামের লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা তাদের উপরও হামলা চালায়। আহত যুবলীগ নেতা জহির বলেন,চিৎকার শুনে আমরা ছুটে গেলে হামলাকারীরা আমাদের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে টহল পুলিশ উপস্থিত হওয়ার পুর্বেই সন্ত্রাসঅরা পালিয়ে যায়। অভিযুক্ত হাসান বলেন,আমি আনোয়ার হোসেন থেকে তিন বছর পুর্বে সম্পত্তি ক্রয় করি। দীর্ঘ সময়ে সম্পত্তি বুঝিয়ে না দেওয়ায় আমার আত্মীয়-স্বজন সোমবার একত্রিত হয়ে ওই পরিবারের কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে ব্যারিকেট দিয়ে দখল করি।