বিচারপতি হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হলো না মেধাবী ছাত্র নাঈমের

188

এম কাউছার হোসেন, রামগঞ্জঃ- রাজধানীর গুলিস্তানে সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নিহত নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈমের (১৭) স্বপ্ন ছিল বিচারপতি হওয়ার। কিন্তু সে স্বপ্ন পূরণ করার সুযোগ পেলেন না মেধাবী ছাত্র নাঈম। সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় অকালেই প্রাণ গেল তার।

গতকাল সকালে তার গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ পৌর পূর্ব কাজিরখীল দেওয়ানবাড়ীতে গেলে তার পরিবারকে আহাজারি করতে দেখা যায়। এ সময় তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নাঈম ছোটবেলা থেকেই খুবই মেধাবী এবং আইনের প্রতি যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল ছিলেন। তিনি পিএসসি, জেএসসি এবং এসএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছিলেন। তার ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল সে বিচারপতি হবেন। কিন্তু তার সে স্বপ্ন আর পূরণ হলো না। নাঈমের মামা কুমিল্লা মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক ফারুক হোসেন ও রামগঞ্জ সরকারি কলেজের প্রভাষক ফরিদ আহম্মেদ ঘাতক গাড়িচালককে দ্রুত বিচারের আওতায় এনে শাস্তি দাবি করেন। রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চু বলেন, ছোট থেকে মেধাবী ছাত্র ছিল নাঈম। তার মৃত্যুতে শুধু রামগঞ্জবাসীর ক্ষতি হয়নি রাষ্ট্র হারিয়েছে অমূল্য সম্পদ।

রাজধানীর গুলিস্তানে সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নিহত নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈমের (১৭) স্বপ্ন ছিল বিচারপতি হওয়ার। কিন্তু সে স্বপ্ন পূরণ করার সুযোগ পেলেন না মেধাবী ছাত্র নাঈম। সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় অকালেই প্রাণ গেল তার। এ সময় তিনি আরও বলেন, ঘাতক গাড়িচালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।
উল্লেখ্য, গত বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তানের সিটি করপোরেশনের ময়লাবাহী গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান (১৭) নিহত হন। জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাসের আরও জানান, ডিএনসিসির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমোডোর সিতওয়াত নাঈমকে আহ্বায়ক এবং মহা-ব্যবস্থাপক (পরিবহন) বিপুল চন্দ্র বিশ্বাস ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) আনিছুর রহমানকে সদস্য করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ডিএনসিসি।